admin_agic

About admin_agic

This author has not yet filled in any details.
So far admin_agic has created 8 entries.

ফেরোমন ট্রাপ (সাবান পানির ব্যবহার ছাড়াই)

ফেরোমন ট্রাপ হচ্ছে একধরনের কীটপতঙ্গের দমন ফাঁদ যাতে ক্ষতিকর পোকামাকড়দের নিয়ন্ত্রন করতে সেক্স ফেরোমন ব্যবহার করা হয়। পুরুষ পোকাকে আকৃষ্ট করার জন্য স্ত্রী পোকা কর্তৃক নিঃসৃত এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ নির্গত করে যা সেক্স ফেরোমন নামে পরিচিত।

কোন কোন ফসলে বা সবজিতে এ ট্রাপ ব্যবহার করা যাবে

বেগুন, টমেটো, ক্যাপসিকাম, ফুলকপি, বাঁধাকপি, মুলা, লাউ, মিষ্টি কুমড়া, করলা/ উচ্ছে। চালকুমড়া, শসা/ ক্ষিরা,

By |August 8th, 2019|Uncategorized|0 Comments

আমের পাউডারী মিলডিউ রোগের কারন ও প্রতিকার

এ রোগের আক্রমনে আমের পাতা, পুষ্প মনঞ্জরী ও শাখা প্রশাখার উপর সাদা গুড়ার মত ছত্রাকের স্পোর বা বীজকনা দেখা দেয়। এর ফলে ফুল ও গুটি শুকিয়ে ঝড়ে পড়ে। পুষ্প মঞ্জরী বৃদ্ধি ও গুটি বাঁধার সময় মেঘলা দিন ও উচ্চ আদ্রতার সাথে যদি রাতে নিম্ন তাপমাত্রা থাকে তবে এ রোগের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যায়।

প্রতিকারঃ

প্রতি

By |February 26th, 2019|Uncategorized|0 Comments

স্ট্রবেরির অন্তবর্তীকালীন পরিচর্যা

সরাসরি মাটির সংস্পর্শে এলে স্ট্রবেরির ফল পঁচে নষ্ট হয়ে যায়। এ জন্য চারা রোপনের ২০-২৫ দিন পর স্ট্রবেরির বেড খড় বা কাল পলিথিন দিয়ে ঢেকে দিতে হয়। খড়ে যাতে উইপোকার আক্রমন না হয় সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। প্রতি লিটার পানির সাথে ৩ মি.লি ডার্সবান ২০ ইসি ও ২ গ্রাম ব্যাভিষ্টিন ডিএফ মিশিয়ে ঐ

By |December 7th, 2017|Uncategorized|2 Comments

শসা ও খিরা চাষ পদ্ধতি

বীজ রোপনের সময়ঃ

ফেব্রুয়ারী থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত শসার বীজ বপন করা ভালো।  সাম্প্রতিককালে সারা বছরই শসার চাষ হয়ে থাকে। খিরার জাতসমূহ সাধারতঃ শীতের শেষ ভাগে লাগাতে হয়।

পরিচর্যা সমূহঃ

১। শসা ও খিরা পানির প্রতি খুব সংবেদনশীল। শুষ্ক আবহাওয়ায় ৫/৬ দিন অন্তর পানি সেচ দিতে হয়। তবে জমিতে যাতে পানি জমে না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে

By |December 3rd, 2017|Uncategorized|0 Comments

আমের উইভিল বা ভোমরা পোকা

ক্ষতির লক্ষন

১। আক্রান্ত আম কাটলে শাঁসের মধ্যে আঁকা বাঁকা সুড়ঙ্গ/ নালা দেখা যাবে।

২। সুড়ঙ্গে পোকার কালো রঙয়ের মল ও পোকার বাচ্চা (কীড়া) বা পূর্ণ বয়স্ক পোকা দেখা যেতে পারে।

৩। কখনো কখনো এ পোকা আমের আটিতেও আক্রমন করে।

দমন ব্যবস্থাঃ

১। গাছের নীচের আগাছা, ঝড়ে পড়া পাতা, মরা ডালপালা সংগ্রহ করে পুড়িয়ে ফেলতে হবে।

২। মাঘ-ফাল্গুন মাসে গাছের

By |May 9th, 2017|Uncategorized|0 Comments

গ্রীষ্ম ও বর্ষাকালীন টমেটোর চাষ পদ্ধতি

১। গ্রীষ্ম ও বর্ষাকালে টমেটো চাষ করার জন্য বারি টমেটো – ৪, বারি টমেটো – ৫,বারি টমেটো – ৫,বারি টমেটো – ৬ হরমোন সহযোগে এবং বারি টমেটো – ১০, বারি টমেটো – ১৩, বারি হাইব্রীড টমেটো – ৩ ও বারি হাইব্রীড টমেটো – ৪ জাত সমূহ হরমোন ছাড়া অনুমোদন করা হয়েছে।

২। ২৩০ সেমি চওড়া

By |December 2nd, 2016|Uncategorized|2 Comments

নারিকেলের লাল মাকড়

লাল মাকড় কচি ফলে আক্রমন করে ফলের রং ও ত্বকের মসৃনতা নষ্ট করে দেয়। এতে কচি ডাব দেখতে পাকা নারিকেলের মত মনে হয়।

প্রতিকারঃ
মাঘ মাসে ৬-৭ মাস বয়স্ক সমস্ত ফুল ও ফল কেটে ফেলে গাছের চার http://www.viagragenericoes24.com/alternativas-a-la-viagra পাশ আগুনে ঝলসাতে হবে। এরপর ওমাইট বা ভার্টিমেক নামক মাকড়নাশক প্রতি লিটার পানিতে ১.৫ মিলি হারে মিশিয়ে ১৫

By |July 24th, 2016|Uncategorized|2 Comments

উন্নতমানের ফল পাওয়ার উপায় সমূহ

ফলের চারা লাগানোর ১-২ বছর পর ফল পাওয়া যায়, যে কারনে উন্নতমানের ফল গাছ লাগানো উচিত।

# বিশ্বস্ত নার্সরী হতে চারা সংগ্রহ করতে হবে।

# উন্নতমানের সুস্থ্য সবল চারা সংগ্রহ করতে হবে।

# সময়মত ও সঠিক দূরত্বে চারা রোপন করতে হবে।

# সঠিকভাবে গর্ত তৈরি ও সার প্রয়োগ করতে হবে।

# সঠিক সময়ে আগাছা পরিষ্কার করতে হবে।

# সুষম মাত্রায়

By |July 23rd, 2016|Uncategorized|0 Comments